1. admin@newsnarayanganjbd.com : newsnarayanganj :
  2. robinnganj@gmail.com : newsnganj newsnganj : newsnganj newsnganj
শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২০, ০৭:১৩ পূর্বাহ্ন

সাবেক সচিবের কান্ড : মাত্র দেড় বছরেই ৩৩ লাখ টাকা আত্মসাৎ

নিউজ নারায়ণগঞ্জ বিডি ডট নেট
  • আপডেট সময় : সোমবার, ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ৩৬ জন সংবাদটি পড়েছেন
সাবেক সচিবের কান্ড : মাত্র দেড় বছরেই ৩৩ লাখ টাকা আত্মসাৎ

শহর প্রতিনিধি : দায়িত্ব পালনের মাত্র এক বছর ৫ মাস সময়ের মধ্যে জন্ম নিবন্ধন থেকে আয় হওয়া ৩৩ লাখ টাকা ব্যাংকে জমা না দিয়ে তসরুপ করেছে নারায়ণগঞ্জের বন্দর ইউনিয়ন পরিষদের সচিব মোঃ ইউসুফ। এ অভিযোগে তার বিরুদ্ধে বন্দর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন আহম্মেদ বন্দর থানায় জিডি, আদালতে মামলা এবং প্রাতিষ্ঠানিক ভাবে মামলা হয়েছে। ইউনিয়ন পরিষদের অর্থ আত্মসাতের কারণে ইউসুফকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।
গতকাল সোমবার বিকেলে বন্দর ইউনিয়ন পরিষদের অস্থায়ী কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বন্দর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন আহম্মেদ সাবেক সচিব মোঃ ইউসুফের এসব অপকর্মের বিস্তারিত তুলে ধরেন।
চেয়ারম্যান এহসান সংবাদ সম্মেলনে বলেন, গত ২০১৬ সালের জুলাই মাসের মাঝামাঝি সময়ে ইউসুফ বন্দর ইউনিয়নের সচিব হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। ওই সময় তিনি বন্দর ইউনিয়নের সাবেক সচিব শামীম মিয়ার কাছ থেকে সবকিছু বঝে নেন। এরপর ২০১৫-২০১৬ অর্থ বছরের অডিটের সময় হলে তিনি অডিটরদের অসহযোগিতা করেন। একারণে ২০১৭ সালের ২০ মে ইউনিয়ন পরিষদের জরুরি সভা ডেকে তাকে অন্যত্র বদলী করার সুপারিশ করতে রেজুলেশন নেওয়া হয়। পরে ওই বছরের ২০ জুন বিষয়টি লিখিত ভাবে জেলা প্রশাসককে জানানো হয়। আবেদনের প্রেক্ষিতে ওই বছরের ১০ ডিসেম্বর ইউসুফকে সোনারগাঁও উপজেলার সন্মান্দি ইউনিয়নের সবিচ হিসেবে বদলী করা হয়। তবে বদলীর সময় সে নতুন সচিবকে কোন কিছু বুঝিয়ে দিয়ে যাননি। তার বদলীর ৫ মাস পর ২০১৮ সালের ১৯ এপ্রিল ২০১৬-১৭ অর্থ বছরের অডিট অনুষ্ঠিত হয়। ওই অডিটে ধরা পড়ে ইউসুফের দায়িত্ব পালনের সময়ে জন্ম নিবন্ধন সনদ প্রদান থেকে আয় হওয়া প্রায় ৩৩ লাখ টাকা ব্যাংক একাউন্টে জমা পড়েনি। বিষয়টি জানতে পেরে ওই বছরের ২৫ এপ্রিল চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন বন্দর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট দফতরকে অবহিত করলে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে তিনি চলতি বছরের ২৮ নভেম্বর নারায়ণগঞ্জের একটি আদালতে মামলার আবেদন করেন। আদালত মামলাটি পিবিআইকে তদন্তের নির্দেশ প্রদান করেন। এরপর উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে তাকে বরখাস্ত করা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন আরও বলেন, তার চলে যাওয়ার পর অডিটর এবং বিভিন্ন সূত্র থেকে জানতে পারি ইউসুফ ২০১৩ সালে সোনারগাঁয়ের মোগড়াপাড়া ইউনিয়নে দায়িত্ব পালন কালে দুর্নীতি ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে ২ বছর বরখাস্ত ছিল। এছাড়া সে বন্দর ইউনিয়নে দায়িত্ব পালনের সময় এ ইউনিয়নের পাশাপাশি অন্য অনেক ইউনিয়ন এবং সিটি করপোরেশনের ওয়বসাইটে প্রবেশ করে অবৈধ ভাবে জন্ম নিবন্ধন সনদ সংশোধন করে টাকা হাতিয়ে নিতো।
দুর্নীতির অভিযোগে বরখাস্ত হওয়ার পরেও ইউসুফ তার অপকর্ম এবং তার দুর্নীতির ঘটনাকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তার দুর্নীতির তদন্ত সঠিক ভাবে সম্পন্ন করার জন্য তিনি ইউসুফের গ্রেফতার দাবি করেন। সংবাদ সম্মেলনে বন্দর ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডের মেম্বার ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডের মেম্বাররা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি আপনার ভাল লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ বিভাগের আরও সংবাদ

সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত নিউজ নারায়ণগঞ্জ বিডি ডট নেট
Customized By NewsSmart